জ্ঞান সারমর্ম

নতুন প্রযুক্তির ভাটার দক্ষতা সাদা ভাটার তুলনায় বেশি কেন?

নতুন প্রযুক্তির অর্থাৎ আঁকাবাঁকা পথের ইটভাটায় (1) জ্বালানী যেমন কম ব্যবহৃত হয় তেমনই জ্বালানী কম নষ্ট হয়, (2) ইটের গুণগত মান অনেক উন্নত, (3) বায়ু দূষণ কমএবং, (4) লাভের পরিমাণও বেশি।

নতুন প্রযুক্তির এই ভাটার দক্ষতা বেশি হওয়ার কারণ তিনটি:

  1. কঠিন জ্বালানী (কয়লা কিংবা কাঠ) প্রায় পুরোটাই পুড়ে যায়l
  2. ইটের সারি ও গরম বাতাসের মধ্যে তাপ বিনিময়ের হার অনেক বেশি
  3. ভাটার ভিতরে তাপ সামঞ্জস্যপূর্ণ ভাবে পরিবাহিত হয় ফলে তাপমাত্রার ওঠানামাতেও ভারসাম্য থাকে।

Advertisement

নতুন প্রযুক্তির ভাটায় কঠিন জ্বালানীর দহন বেশি কেন?

নতুন প্রযুক্তির চিমনিতে জ্বালানী বেশি দহনের কারণ

  1. আঁকা বাঁকা পথ
  2. কঠিন জ্বালানী গুড়ো করে আগুন জ্বালানো
  3. লম্বা অগ্নিপথ
  4. এক সঙ্গে কম পরিমাণ জ্বালানী সরবরাহ করা
  5. কঠিন জ্বালানীর লাগাতার যোগান।

Advertisement

1. আঁকাবাঁকা পথ

নতুন প্রযুক্তির ভাটায় বাতাস এবং গরম হয়ে যাওয়া অন্য গ্যাস সমূহ এমনভাবে সুড়ঙ্গ এবং খাঁড়ির মধ্য দিয়ে ঘন ঘন দিক পরিবর্তন করতে করতে বাতাসের অনুকূলে এগোতে থাকে। এইভাবে কিছুটা ঘূর্ণিবাতাস যখন দহনের জায়গায় পৌঁছয় তা বাতাসের সঙ্গে কঠিন জ্বালানীর মিশ্রণ প্রক্রিয়াকে শুধু ত্বরান্বিতই করে না, পুরো জ্বালানীকে বাতাসের সঙ্গে মিশিয়ে দেয়। তারপরে জ্বালানীর দহন যেমন দ্রুত হয়, তেমনই প্রায় পুরো জ্বালানীই খরচ হয়ে যায়। উদ্বৃত্ত কিছু থাকে না।

2. গুড়ো করা কঠিন জ্বালানী

সাবেক ভাটা গুলিতে বড় বড় কয়লার চাঙড় পোড়ানোর জন্য দেওয়া হয়। তাই বাতাস পুরোপুরি কয়লার সঙ্গে মিশতে পারে না। নতুন প্রযুক্তির এই ভাটায় কয়লাএমনভাবেগুড়ো করে দেওয়া হয় এবং কম পরিমানে দেওয়া হয়, যে বাতাস জ্বালানীর সঙ্গে পুরোপুরি মিশে যায়। এর ফলে জ্বালানীর পুরোপুরি দহন হয় এবং একবারে বেশি তাপ উৎপন্ন হয়। পুরো জ্বালানী পুড়ে যাওয়ায় জ্বালানী নষ্টের আশঙ্কাও কমে যায়।

3. লম্বা অগ্নিপথ

সাবেক ইটভাটার থেকে নতুন প্রযুক্তির ভাটায় দহনের জায়গায় আকার কিছুটা বড়। তাছাড়া আগুনের পথ অনেক লম্বা হওয়ায় আগুনও উত্তপ্ত গ্যাস অনেকটা বেশি পথ অতিক্রম করে। তার ফলে আগুন অনেক বেশি সময় ধরে ভাটার ভিতরে থাকে। ভাটার মধ্যে আগুন বেশি সময় ধরে থাকায় বাতাসের সঙ্গেজ্বালানীর মিশ্রণ ভালো হয়এবংজ্বালানী দ্রুত গরম হয়ে যায়। দহন সম্পূর্ণ হলে দেখা যায়, জ্বালানীর কিছুই প্রায় অবশিষ্ট নেই। পুরো জ্বালানীটাই প্রায় পুড়ে যায়।

4. একসঙ্গে কমপরিমাণে জ্বালানী সরবরাহ করা

যাতে গুড়ো করা কঠিন জ্বালানী কম কম করে ভাটার মধ্যে ঢোকানো যায় তাই নতুন প্রযুক্তির ভাটায় ছোট চামচ ব্যবহার করা হয়। আর একবারে কমপরিমাণে জ্বালানী ভাটায় সরবরাহ করানোয় বাতাসের অভাব কখনও হয় না। তাই জ্বালানীর পুরো দহন সম্ভব হয়।

5. লাগাতার জ্বালানীর যোগান

দহন এলাকায় লাগাতার কঠিন জ্বালানী ঢোকানেয় ভাটার ভিতরে ধাপে ধাপে তাপমাত্রা বাড়তে থাকে। দহনের সময়টায় ভাটার সর্বত্র একই পরিমাণ তাপ থাকে। তাই এই প্রযুক্তির ভাটায় কঠিন জ্বালানীর পুরো দহন সম্ভব হয়।

জ্বালানীর পুরো দহনের সুবিধা কি?

জ্বালানীর অপচয় বন্ধ হয়, দূষণ কম হয়।

গরম গ্যাসও ইটের মধ্যে তাপের আদান প্রদান নতুনপ্রযুক্তির ভাটায় বেশি হয় কেন?

নতুন প্রযুক্তির ভ্যাটে আকাবাঁকা পথে গরম বাতাসও আগুন ঘন ঘন দিক পরিবর্তন করে। এইভাবে বারবার দিক পরিবর্তন করায় ধাক্কা খেতে খেতে বাতাসের মধ্যেএকটা ঘূর্ণি তৈরি হয়। এর ফলে বাতাস, উত্তপ্ত গ্যাস এবং ইটের মধ্যে তাপের আদান প্রদানের হার বেড়ে যায়। এর ফলেসব ইটের মধ্যে সমান ভাবে তাপ ছড়িয়েপড়ে।

গরম গ্যাস এবং ইটের মধ্যে তাপ আদান প্রদানের হার বাড়লে কি হয়?

একদিকে তাপ সবদিকে সমান ভাবে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ায় জ্বালানী কম খরচ হয়, অন্যদিকে তৈরি হওয়া ইটের গুণগতমানও ভাল হয়। উন্নত মানের ইট বেশি পরিমাণে তৈরি হওয়ায় রাজস্ব আদায়ও বেশি হয়।

আঁকাবাঁকা ইটভাটার সর্বত্র তাপমাত্রা একই সঙ্গে নামা ওঠা করে কী ভাবে?

অনবরত ভাটায় জ্বালানি প্রবেশ করানোর জন্য ভাটার সর্বত্র তাপমাত্রা ধাপে ধাপে বাড়ে। তাপ ভাটার সর্বত্র সমান ভাবে ছড়িয়ে পড়ে। প্রতিটি প্রকোষ্ঠে তাপমাত্রা তাই একই সঙ্গে বাড়তে থাকে।

পুরনো প্রযুক্তির ভাটায় যে কয়লা ভাটার ভিতরে ঢোকানো হয় তার প্রায় পুরোটাই মেঝতে জ্বলতে থাকে। আর ভাটার মেঝের দিকে তাপমাত্রা থাকে অন্য অংশের তুলনায় অনেক বেশি। পুরো জ্বালানি অনেক ক্ষেত্রেই অদাহ্য থেকে যায়। কিন্তু নতুন প্রযুক্তির ভাটা অর্থাৎ আঁকাবাঁকা ভাটায় অল্প অল্প জ্বালানি অবিরত ভাটার ভিতরে ঢোকানোয় পুরো জ্বালানিটাই ধীরে ধীরে জ্বলতে জ্বলতে শেষ হয়ে যায়। তাপমাত্রা ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে। তাপও সমানভাবে সব প্রকোষ্ঠে সমান ভাবে উপরনীচে ছড়িয়ে পড়ে।

তাছাড়া ভাটার ভিতরে আঁকাবাঁকা পথে বাতাস চলাচল করায় তাপ ভাটর সর্বত্র সমানভাবে ছড়িয়ে পড়ে।

সব প্রকোষ্ঠে সমান ভাবে তাপ ছড়িয়ে পড়ার সুফল কি?

তাপ ভাটার সর্বত্র সমান ভাবে ছড়িয়ে পড়ায় উন্নত প্রজাতির ইট তৈরির সম্ভাবনা বাড়ে। আর উন্নত প্রজাতির ইট বেশি পরিমাণে তৈরি হওয়ায় ভাটার রাজস্ব আদায়ও বেশি হয়।

আরও জ্ঞান সারমর্ম জন্য এখানে ক্লিক করুন এখানে ক্লিক করুন নতুন প্রযুক্তির ভাটার দক্ষতা সাদা ভাটার তুলনায় বেশি কেন? মেইন পেজে যাওয়ার জন্যClick here to go to User Home