জ্ঞান সারমর্ম

IDZK ভাটায় ইট সাজানো হয় কী ভাবে? [ইটেরসজ্জা-2]

সাবেকি FCBTK ভাটায় সুরঙ্গে যে ভাবে ইট সাজানো হয় IDZK ভাটায় ইট সাজানোর পদ্ধতি কিন্তু আলাদা। কোনও IDZK ভাটায় প্রতি প্রকোষ্ঠের প্রস্থ বরাবর ইট সাজানো হয়। এই ভাটাতেও প্রতি সারিতে উল্লম্ব ভাবে সুড়ঙ্গের প্রস্থ বরাবর ইট সাজানো হয়। তবে এই ভাটায় প্রতিটি সারির প্রস্থ এক হয় না। বাইরে থেকে ভিতর দিকে যাওয়া সারিগুলিতে ধাপে ধাপে সারির প্রস্থ বাড়তে থাকে। সাধারণত আটটি সারিতে সাজানো থাকে ইট। পূর্ব ভারতে যেই ভাবে ইট সাজানো হয় সেটা এখানে পাবেন – “IDZK ভাটায় কী ভাবে ইট সাজানো হয়? [ইটেরসজ্জা-1]“।

0

Advertisement

FCBTK ভাটার থেকে IDZK ভাটায় ইট সাজানোর পদ্ধতি কতটা আলাদা?

FCBTK ভাটায় যেভাবে সাজানো হয় ইট

FCBTK ভাটার মতেো IDZK ভাটাতেও প্রতি সারিতে উল্লম্ব ভাবে সুড়ঙ্গের প্রস্থ বরাবর ইট সাজানো হয়। একের পর এক সারিতে ইট সাজানো হয় বায়ু পথের অভিমুখ ধরে। FCBTK ভাটায় সব সারিতে ইটের সংখ্যা একই থাকায় বায়ুর পথ সোজা হয়।

IDZK ভাটায় যেভাবে সাজানো হয় ইট

IDZK ভাটায় একই ভাবে সুড়ঙ্গের প্রস্থ বরাবর উল্লম্ব ভাবে প্রতিটি সারিতে ইট সাজানো হয়। তবে এ ক্ষেত্রে প্রতিটি সারিতে ইটের সংখ্যা সমান রাখা হয় না। ভিতরের সারিগুলিতে পর্যায়ক্রমে ইটের সংখ্যা কমতে থাকে। পাশাপাশি ইটের সারির ইটের সংখ্যা কমবেশি হওয়ায় বাতাসকে সুড়ঙ্গের দৈর্ঘ্য বরাবর এবং প্রস্থ বরাবর ধাক্কা খেতে খেতে এগোতে হয়। এর ফলে বাতাসের পথ হয় আঁকাবাঁকা। সাধারণত ছয়টি সারিতে সাজানো থাকে ইট।

ইট সাজানোর পদ্ধতি পৃথক হওয়ায় দুটি ভাটায় বায়ু চলাচলের গতিপথও ভিন্ন হয়। FCBTK ভাটায় বায়ুর অভিমুখে সোজা এগোয় আগুন। আর IDZK ভাটায় ভাটার মধ্যে আগুন এগোয় আঁকাবাঁকা পথে।

Advertisement

IDZK ভাটায় প্রতিটি প্রকোষ্ঠের আয়তন কত হয়?

IDZK ভাটার ক্ষেত্রে প্রতিটি প্রকোষ্ঠের পরিমাপ নির্দিষ্ট করা থাকে

  1. প্রতিটি সুড়ঙ্গের যা প্রস্থ সেটাই প্রতিটি প্রকোষ্ঠেরও প্রস্থ।
  2. প্রতিটি প্রকোষ্ঠের দৈর্ঘ্য কত হবে তা নির্ভর করে ইটের দৈর্ঘ্য কত তার উপরে। প্রতিটি প্রকোষ্ঠে সাধারনত ছয়টি সারিতে ইট সাজানো থাকে। প্রতিটি সারি কতটা পুরু তা নির্ভর করে ইটের দৈর্ঘ্যের উপরে। দুটি পাশাপাশি সারির মধ্যে মধ্যে আদ্ধেক সমান ফাঁকা অংশ রাখা হয়। প্রতিটি প্রকোষ্ঠের দৈর্ঘ্য সাধারণ ভাবে 6 থেকে 7 ফুটের (1.82 – 2.13 মিটার) মধ্যে ঘোরাফেরা করে।

IDZK ভাটায় প্রতিটি প্রকোষ্ঠে কী ভাবে সাজানো হয় ইট?

প্রতিটি প্রকোষ্ঠে ইঠ সাজানো থাকে নির্ধিষ্ট পদ্ধতিতে-

  1. প্রতিটি প্রকোষ্ঠে ছয়টি সারিতে সাজানো থাকে ইট। এর মধ্যে একটি শেষের সারি। অন্য পাঁচটি মাঝের সারি। প্রতিটি সারির প্রস্থ নির্ভর করে ইটের দৈর্ঘ্যের উপরে। দুটি লারির মাঝখানে এক আধলা সমান ফাঁক রাখা হয়।
  2. মাঝের সারিগুলিতে বেশ কয়েকটি থাকে ইট সাজানো থাকে। দেওয়ালের কাছাকাছি থাকা দুটি থাক ছাড়া বাকি থাকগুলিতে ইটের সংখ্যা একই থাকে।
  3. শেষ অর্থাৎ ষষ্ঠ সারিটি একটি ইটের দেওয়ালের কাজ করে। তার মধ্যে বেশ কয়েকটি ফুটো থাকে যার মধ্য দিয়ে বাতাস ঢোকে-বেরোয়।
  1. প্রতিটি প্রকোষ্ঠে ক’টি সারি থাকবে এবং প্রতি সারিতে কত ইট থাকবে তা নির্ভর করে সেই ভাটা কত ইট তৈরি করতে পারবে এবং সুড়ঙ্গের প্রস্থ কত হবে তার উপরে।
  2. পাশাপাশি দুটি সারি ইট দিয়েই সংযুক্ত থাকে। এই সংযোগকে বলে বন্ধন বা জোড়। প্রতিটি সারি যাতে সোজা দাঁড়িয়ে থাকে তার জন্য এই জোড় জরুরি।
  3. দুটি পার্শ্ববর্তী থাকও ইট দিয়ে সংযুক্ত থাকে। দুটি থাকের সংযোগকারী ইটকে বলে জোড়ি। এর ফলে একদিকে যেমন ভাটার জোর বাড়ে তেমনই আগুন এবং গরম বাতাস চলাচলের পথও তৈরি হয়।

বাতাস চলাচলের রাস্তা কী ভাবে তৈরি করা হয়?

প্রতি প্রকোষ্ঠের শেষ সারিটি প্রকোষ্ঠের দেওয়ালের কাজ করে। ওই দেওয়ালের অপর দিকেই থাকে মিয়ানা। ইটের দেওয়ালের গায়ে দুই থেকে তিনটি ফুটো থাকে যেগুলি সরাসরি মিয়ানায় গিয়ে খোলে। বাকি তিন থেকে চারটি ফুটে খোলে প্রকোষ্ঠের মাঝামাঝি। দুটি পাশাপাশি প্রকোষ্ঠের একটির ফুটোগুলি যদি দুই পাশে থাকে, তবে পরের প্রকোষ্ঠের ফুটোগুলি মাঝামাঝি অংশে থাকে। এই ভাবে ফুটোগুলি পর্যাক্রমে সাজানো থাকে।

বায়ু পথগুলি এই ভাবে রাখায় বাতাসকে বাধ্য হয়েই এঁকেবেঁকে চলতে হয়।

IDZK ভাটায় কী ভাবে বাতসকে এঁকেবেঁকে চলতে বাধ্য করা হয়?

উপরের ছবি মতো একটি প্রকোষ্ঠের দেওয়ালের বায়ুপথগুলি কিন্তু পাশের প্রকোষ্ঠের দেওয়ালের বাযুপথে সঙ্গে সোজাসুজি বসানো হয় না। একটি প্রকোষ্ঠের দেওয়ালের দুই পাশে থাকা বায়ুপথ দিয়ে বাতাস বেরিয়ে পাশের বুথের দেওয়ালের মাঝামাঝি থাকা বায়ুপথ দিয়ে প্রবেশ করে। এর জন্য বায়ুর পথ কখনও সোজা হয় না। এংকেবেঁকে চলতে বাধ্য হয় বাতাস।

গলিতে কী ভাবে ইট সাজানো হয়?

গলি এলাকায় ইট সাজানো
বাইরের দেওয়ালের ছিদ্র যা গালি এলাকায় খোলে

আয়তাক্ষেত্রকার প্রকোষ্ঠের দৈর্ঘ্য বরাবর আঁকাবাঁকা পথে ইট সাজানো হয়। প্রস্থের দিকের অংশকে বলে গলি। গলিতে অবশ্য ইট সাজানো হয় সাবেক পদ্ধতিতে।

গলি অংশে একমাত্র ষষ্ঠ সারিটি বাদে অন্য পাঁচটি সারিতে ইটের সংখ্যা সমান থাকে। এই অংশে বাতাস সোজা পথে চলে। গলি অঞ্চলের বায়ুপথ থাকে কেবলমাত্র ভাটার বাইরের দেওয়ালের দিকে। এর ফলে ভাটার একেবারে প্রত্যন্ত কোণাতেও আগুন পৌঁছে যায়। এই অঞ্চলে বাতাস সোজা পথে চলাচল করে। এখমাত্র বাইরের দেওয়ালে বায়ুপথ খোলায় মিয়ানার বায়ু প্রবাহের সঙ্গে এই বায়ু প্রবাহের কোনও সংঘাত হতে পারে না।

আরও জ্ঞান সারমর্ম জন্য এখানে ক্লিক করুন এখানে ক্লিক করুন IDZK ভাটায় ইট সাজানো হয় কী ভাবে? [ইটেরসজ্জা-2] মেইন পেজে যাওয়ার জন্যClick here to go to User Home